ঘরে তৈরি করুন এয়ার ফ্রেশনার

30.7.14

বর্ষাকাল আমার একদমই পছন্দের না। প্রথম এক দুদিন বৃষ্টি ভালো লাগে। কিন্তু সারা দিন যে টিপটিপ করে বৃষ্টি আমার একদমই পোষায় না। অনেকে হয় তো খুব ভালো লাগে।আমার রে বাবা একদমই না!!! এই সময় ঘর যতই পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখি না কেন ফ্রেশ ফ্রেশ লাগেনা। তার উপর তো আছে কেমন যেন চাপা একটা গন্ধ। কেনই না হবে না ? কোন জামাকাপড় শুকোতে চায় না, পাখার চালিয়ে শুকোতে হয়। এতে ঘরের ফ্রেশনেশটাও চলে যায়। আমি এর উপায় হিসাবে বাজারে বিভিন্ন ধরণের সুগন্ধি এয়ার ফ্রেশনার কিনে আনতাম। কিন্তু পরে মনে হল এগুলোর এতো দাম তার উপর শরীরের জন্য ঠিক নয় তাই নিজেই ঘরে তৈরি করলাম এয়ার ফ্রেশনার। দেখলাম যে রান্না ঘরেরই মজুত আছে আমার এয়ার ফ্রেশনার তৈরির সব সামগ্রী।



লেবু ও বেকিং সোডা হচ্ছে চিরাচরিত দুর্গন্ধ নাশক এবং ফ্রেশনার তৈরির জন্য এর চেয়ে সহজ পদ্ধতি আর হতে পারে না। এক্ষেত্রে আমি যা করেছি একটি কাঁচের জারে বেশ কিছুটা বেকিং সোডা নিয়েছি এবং তাতে লেবু স্লাইজ করে কেটে রেখেছি। জারের মুখটি বন্ধ করার জন্য আমার ঘরে রাখা একটি বস্তার সামান্য অংশ কেটে নিয়েছিলাম। দড়ি দিয়ে সেই বস্তার অংশটি জারের মুখ বেঁধে দেই। আর তৈরি হয়ে গেলো আমার এয়ার ফ্রেশনার। চাইলে জারের মুখ বন্ধ করার জন্য জারের ঢাকনি ব্যবহার করতে পারের। তবে এক্ষেত্রে জারের ঢাকনিতে ছোট ছোট ছিদ্র করে নেবেন। ছিদ্র করার কারনটা হল, যাতে সুগন্ধ সহজে ছবিয়ে পড়তে পারে।

আরেকটা করতে পারেন লেবুর বদলে ৩-৪ ফোঁটা ল্যাভেন্ডার ওয়েল ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে কৌটার চার ভাগের তিন ভাগ অংশ বেকিং সোডা দিয়ে পূর্ণ করুন।  ৩-৪ ফোঁটা ল্যাভেন্ডার ওয়েল বা সুগন্ধি তেল বেকিং সোডাতে ঢালুন ও এরপর ভালভাবে মিশিয়ে নিন। এরপর কৌটাটির মুখ বন্ধ করে দিন ও ঘরের যে কোন কোণায় রেখে দিন। ল্যাভেন্ডার ওয়েল বাজার থেকে কিনে আনতে পারেন অথবা অনলাইন ওর্ডার দিয়েও বাড়িতে আনাতে পারেন। আমি এই দুটি এয়ার ফ্রেশনারই ট্রাই করছি। ভালো ফল পেয়েছি তাই সেয়ার করলাম। যদি অন্য কোন  এয়ার ফ্রেশনার তৈরি করতে পারি অবশ্যই সেয়ার করবো। আপনাদের যদি কিছু জানা থাকে তাহলে জানাতে ভুলবেন না কিন্তু :) ।
                                           take care
Follow Me on Pinterestটিপসটি ভালো লাগলে লাইক ও সেয়ার করুন !

You Might Also Like

0 comments

Contact Form

Name

Email *

Message *

Translate

Followers

Labels