frizzy/ড্রাই হেয়ারের কন্ডিশনার

15.9.14

অনেকেই আছেন যাঁদের চুল খুব ড্রাই। শুষ্কতার ফলে চুলে খুব সহজেই জট পড়ে যায়, চুলের ডগা ভেঙে যায়, চুল সব সময় নিস্প্রাণ থাকে। ড্রাই হেয়ার সামলানোর একমাত্র উপায় ভালো কোনও কন্ডিশনার লাগানো। কন্ডিশনার লাগানোর ফলে চুল নরম এবং জট মুক্ত থাকে। বাজারে অনেক রকমের কন্ডিশনার পাওয়া যায়। এর মধ্যে কিছু চুলে শ্যাম্পু করার আগে লাগাতে হয়, কিছু পরে, আবার এমনও কন্ডিশনার পাওয়া যায় যা সারা রাত লাগিয়ে রাখতে হয়। অনেকে ঘরে তৈরি কন্ডিশনারও ব্যবহার করতে পছন্দ করেন। ঘরে কন্ডিশনার তৈরি করা খুব সহজ এবং কিছুদিনের জন্য আপনি এটা স্টোর করে রাখতে পারেন। এই যেমন - 



১) নারকেল তেল আর মধু দিয়ে কন্ডিশনার : 

এই কন্ডিশনারটা ড্রাই হেয়ারের জন্য খুবই উপকারী এবং তৈরি করাও খুব সহজ। 

যা যা লাগবে : 

১ টেবিলচামচ ভার্জিন নারকেল তেল ( Natural pure coconut oil কে ভার্জিন নারকেল তেল বলে) 

১ টেবিল চামচ মধু 

১ টেবিল চামচ লেবুর রস 

২ টেবিলচামচ টক দই  

কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল  

কয়েক ফোঁটা আপনার প্রিয় কন্ডিশনার (অপশনাল) 

একটা বাটিতে সব একসঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিন। ভালো করে চুলে ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। 

২) কোকনাট মিল্ক ডিপ কন্ডিশনার : 

এই ঘরে তৈরি কন্ডিশনার ডিপ কন্ডিশনিং করা ছাড়াও চুলের আদ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে।  

যা যা লাগবে: 

১/৪ কাপ নারকেলের দুধ 

২ টেবিলচামচ মধু 

১ ভিটামিন ই ক্যাপসুল 

কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল

কয়েক ফোঁটা গ্লিসারিন 

কয়েক ফোঁটা আপনার প্রিয় কন্ডিশনার (অপশনাল)  

সবকিছু একসঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিন।  ভিটামিন ই ক্যাপসুল টা ভেঙে ভেতরের জলের মতো পদার্থটা মিশিয়ে নিন।  এই মিশ্রণটা চুলে ভালো করে লাগিয়ে একটা শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে চুল ঢেকে রাখুন, ১৫ মিনিট পরে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। 

এই কন্ডিশনার লাগানোর পর আপনি নিজেই আশ্চর্য হয়ে যাবেন চুলের সফ্টনেস আর সাইন দেখে। 

নারকেল তেলের বদলে আমন্ড অয়েল বা  অলিভ অয়েল ব্যবহার করতে পারেন।


                              take care
Follow Me on Pinterest

You Might Also Like

0 comments

Contact Form

Name

Email *

Message *

Translate

Followers

Labels