৫ টি সহজ উপায়ে স্বাভাবিক ভাবেই মুখের অবাঞ্ছিত লোম হালকা করুন

22.2.15


আপনার কি মুখের অবাঞ্ছিত লোম আছে?  এতে আপনি কি  বিব্রত বোধ  করছেন ? মুখের অবাঞ্ছিত লোমের সমস্যা নিয়ে ঝামেলায় আছেন অনেকেই। কারো গালে-চিবুকে-ঠোঁটের ওপরে,কারো আবার কপাল জুড়ে বিচ্ছিরি কালো লোম।অনেকেই বিউটি পার্লারে গিয়ে ব্লিচ বা থ্রেডিং করার হয় এর থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য। তবুও এর কোন স্থায়ী সমাধান নেই। আর লেজার পদ্ধতি যথেষ্ট ব্যয়বহুল একটি ব্যাপার। তাহলে কি করে এই অবাঞ্ছিত লোমের হাত থেকে রেহাই পাওয়া যাবে ? এমন একটি সলিউশন যার ব্যবহারের ফলে এই অবাঞ্ছিত লোম আর বিব্রত বোধের কারন হবে না। তাহলে এই ৫ টি সলিউশন আপনার জন্য।



সলিউশন ১

মধু এবং লেবু:

মধু একটি জনপ্রিয় প্রাকৃতিক ব্লিচিং উপাদান। এটি খুব  আলতো করে আপনার মুখের  অবাঞ্ছিত লোম ব্লিচ করতে সাহায্য করে। এছাড়া মধু ত্বকের প্রাকৃতিক pH মাত্রা ধরে রাখতে সাহায্য করে। এছাড়াও সব ধরনের ত্বকের জন্য  মধু একটি আদর্শ উপাদান। 

কি কি লাগবে

মধু চা চামচ
লেবু  রস ১ চা চামচ

কী ভাবে তৈরী করবেন

১। উপরের দুটি উপাদান একটি বাটি মধ্যে ভালো করে মিশ্রিত করুন।
২। এবার এটি সারা মুখে লাগিয়ে নিন।
৩। মিশ্রণটি ২০ থেকে ২৫ মিনিট রেখে দিন। এবার জল দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন।

সলিউশন ২

হলুদ:

হলুদ প্রাচীন কাল থেকেই একটি  ব্লিচিং এজেন্ট হিসাবে ব্যবহার করা  হচ্ছে। হলুদের  নিয়মিত ব্যবহার ফলে খুব স্বাভাবিকভাবেই আপনার মুখের লোমের রং ধীরে ধীরে হালকা হতে থাকবে।

কি কি লাগবে

২ চামচ হলুদ
১ চামচ দুধ

কী ভাবে তৈরী করবেন

১। উভয় উপাদান দিয়ে একটি পেস্ট  তৈরি করুন।
২। এবার পেস্টটি আপনার মুখে লাগিয়ে নিন এবং
৩। ২০ মিনিটের জন্য রেখে ধুয়ে নিন।

সলিউশন ৩

পাতি লেবু:



লেবু খুব দ্রুত ব্লিচ করতে পারে। তবে লেবু রসের ব্যবহারে ত্বকে  সামান্য জ্বালা হতে পারে সুতরাং মুখ প্রয়োগ করার আগে একবার কানের পেছনে লাগিয়ে নিয়ে পরীক্ষা করে দেখুন যে কোন জ্বলা হচ্ছে কিনা।

কি কি লাগবে

একটা অর্ধেক লেবুর রস
চিনি চা চামচ

কী ভাবে তৈরী করবেন


উভয় উপাদান মিশিয়ে  নিন এবং স্ক্রাবারের মতো ব্যবহার করুন। ২ মিনিট এই মিশ্রন দিয়ে মাসাজ করে নিন। ৫ থেকে ১০ মিনিটের মতো রেখে ধুয়ে নিন।

সলিউশন

ময়দা:

ময়দা প্যাক ত্বকের খুব ভালো স্ক্রাবার হিসাবে কাজ করে যা ত্বকের মৃত কোষ দূর করে পাশাপাশি মুখের  অবাঞ্ছিত লোম উঠাতে সাহায্য করে। এটি ব্যবহারের একটি বারতি বেনিফিট হল এতে ত্বকও উজ্জ্বল হয়।

কি কি লাগবে

ময়দা  ২ চামচ
দুধ ১ চামচ
হলুদ ১ চামচ

কী ভাবে তৈরী করবেন

সব উপকরণ দিয়ে  একটি  পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্টটি আপনার মুখের  লাগিয়ে নিন এবং  ২০ মিনিটের জন্য রেখে দিন। এবার একটি নরম কাপড় হালকা গরম  জলে ডুবিয়ে নিয়ে সেটি দিয়ে আলতো মাসাজ করে করে প্যাকটি তুলে নিন।

সলিউশন 

পেঁপে এবং দুধ:

পেঁপের মধ্যেও ব্লিচিং উপাদান রয়েছে। এটি সব ধরনের ত্বকেই খুব মৃদু ব্লিচিং উপাদান হিসাবে কাজ করে  

কি কি লাগবে

২ চামচ পেস্ট করার পেঁপে
দুধ চা চামচ

কীভাবে তৈরী করবেন

উভয় উভয় উপাদান একটি বাটি মধ্যে মিশিয়ে নিন। এবার এটি মুখে লাগিয়ে নিন। ২০ মিনিট পরে জল দিয়ে মাসাজ করতে করতে তুলে ফেলুন।

ধৈর্য রেখে উপরের দেওয়া সলিউশনগুলি নিয়মিত ব্যবহার করুন। এই সলিউশনগুলি ব্যবহারের ফলে আপনার মুখের অবাঞ্ছিত লোমের রঙের মধ্যে তফাৎ লক্ষ্য করুন। যে সমস্ত লোম অধিক কালো ছিল সেগুলির রং ধীরে ধীরে হালাক হয়ে আসবে। সুন্দর এবং নিরাপদ থাকুনএই রেসিপিগুলির মধ্য কোনটি আপনার প্রিয়?  জানান।  নিচের মন্তব্য বিভাগে মন্তব্য করুন।
image source: স্টাইলক্রেজ 

You Might Also Like

0 comments

Contact Form

Name

Email *

Message *

Translate

Followers

Labels