গ্রিন টি কেন পান করবেন ?

29.4.15


সকালে ঘুম থেকে উঠে, ফ্রেস হয়ে যে কাজ টি আমি প্রথম করি, তা হল এক গ্লাস হালকা গরম জল পান করা এবং আধ ঘণ্টা পরে এক কাপ গ্রিনটি। এই কাজ বোধ হয় আমি ভুল করেও ভুলবো না। সারাদিনে ৩ কাপ গ্রিন টি আমি পান করি। অনেক ম্যাগাজিনেই পরেছি  গ্রিন টি উপকারিতা, বিশেষ করে স্বাস্থ্যগত উপকারিতা।
গ্রীন টি আর সাধারণ চা এর মধ্যে সাধের পার্থক্য রয়েছে,গ্রিন টি তে কেফেইন এর পরিমান কম আর সাধারণ চা এর কেফেইন এর পরিমান বেশি থাকে। এছাড়া সাধারণ চা এ কিছু পরিমান এন্টি অক্সিডেন্ট রয়েছে কিন্তু গ্রিন টি তে খুব ভালো পরিমানে এন্টি অক্সিডেন্ট রয়েছে যার সাস্থ্য উপকারিতা অনেক বেশি। বর্তমানে গ্রীন টি বিশ্ববেপী অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছে এর  এক মাত্রা  কারণ সাস্থের উপর এর অনেক উপকারী ভুমিকা। আমি কেন গ্রিন টি পছন্দ করি ? এর তিনটি কারন রয়েছে -
গ্রিন টি ওজন কমাতে সাহায্য করে
বিভিন্ন গবেষনা থেকে জানা গেছে যে গ্রিন টি পান করলে সহজেই শরীরের বারতি ওজন হ্রাস পায়। গ্রিন টি হজম ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এর পলিফেনল শরীরের ফ্যাট অক্সিডেশন প্রক্রিয়াকে আরও কার্যকর করে খাবার থেকে ক্যালরি তৈরি প্রক্রিয়ায় সহায়তা করে।
ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করে

ত্বকের উজ্জ্বলতা  শুধু বাইরে থেকে প্যাক লাগালেই আসে না, ভেতর থেকেও আসা চাই। গ্রিন টিতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামাটরি উপাদান যা ত্বকে বলি রেখা পড়তে দেয় না ফলে ত্বক বয়সের ছাপ পড়েনা। তাই নিয়মিত গ্রিন টি পান করুন আর ত্বকে বলি রেখার হাত থেকে রক্ষা করুন।

এছাড়াও আমি বিভিন্ন ফেস প্যাকে গ্রিন টি ব্যবহার করি যা ত্বকের রোদে পোড়াভাব কমাতে ও ব্ল্যাক হেডস দূর করতে সাহায্য করে।
দাঁতের যত্ন

সবুজ চা প্লেক বিল্ড আপে প্রতিরোধ করে এবং দাঁতের ক্ষয় থেকে আপনার দাঁত রক্ষা করে। এছাড়াও যাদের মুখে গন্ধ হয় তাদের তো অবশ্যই সবুজ চা পান করতে হবে, এতে মুখের বাজে গন্ধ দূর হয়।

আরও অনেক উপকারিতা রয়েছে যেমন নিয়মিত গ্রিন টি পান করলে উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি কমে যায়। ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণ করে গ্রিণ টি। ফলে দেহে অতিরিক্ত চর্বি জমতে পারে না। এছাড়ারও শরীরের ক্ষতিকর কলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। পাশাপাশি প্রয়োজনীয় উপকারী কোলেস্টেরলের পরিমাণও বাড়ায়।

জানি সবুজ চায়ের স্বাদ একটু তেঁতো ধরনের তবে এর এতো গুন জানবার পর নিশ্চয় সুন্দরীরা সবুজ চা পান করা থেকে নিজেকে বিরত রাখবেন না। সবুজ চা দিনে দুবার পান করেই দেখুন না, কোন ক্ষতি হবে না। বরং লাভই হবে।
লেখাটি ভালো লাগলে লাইক করুন, শেয়ার করুন।


You Might Also Like

0 comments

Contact Form

Name

Email *

Message *

Translate

Followers

Labels