চোখের আইল্যাশ ও ভুরু ঘন করার উপায়

30.1.15

আমাদের অনেকেরই চোখের পাতা বা ভুরু খুব বেশি ঘন হয় না  সেক্ষেত্রে পুরো মুখে প্রপার মেকআপ করলেও চোখটা একটু ফাঁকা, ফাঁকা বা অস্পষ্ট দেখায়। অনেকেই খুব দক্ষতার সঙ্গে মেকআপ করতে পারেন। আর সেই সব পাতলা অংশ  ডেকেও ফেলেন। এখন বাজারে অনেক ধরনের,রঙের ভুরু আঁকার পেনসিল পাওয়া যায়। যা দিয়ে সুন্দর করে ভুরু এঁকে নিলে ত্রুটি বোঝাই যায় না। সেই রকমই পাওয়া যায় চোখের পাতা ঘন করার নানা মেকআপ সামগ্রী। এই যেমন ধরুন মাস্কারা, আইল্যাশ কার্লার বা নকল আইল্যাশ নকল আইল্যাশ আমি ব্যক্তিগত ভাবে কোন দিনই ব্যবহার করি নি। হ্যাঁ কোন একদিন তো ট্রাই করবোই। যাই হোক, এই সমস্ত পদ্ধতি কিন্তু চোখের পাতা বা ভুরু ঘন করার কোন permanent solution নয়। তাহলে কি করা ? যাদের আমার মতো হাল তাদের নিশ্চয় নিজেস্ব কিছু পদ্ধতি তো আছেই, আমি কি করি আমার  চোখের পাতা বা ভুরু ঘন করার জন্য আজ তাই সেয়ার করবো



আইল্যাশ ঘন করার উপায়

আইল্যাশ ঘন করার জন্য মেকআপ, একটা হাতিয়ার। আমি যেহেতু নকল আইল্যাশ পরি না তাই চোখের মেকআপ করার সময় চোখের পাতা প্রতি একটু বেশি নজর দিতে হয়। আইল্যাশ বড় লাগলেই তো চোখ আরও সুন্দর দেখাবে (আমার চোখ মাঝারি আকারের)

আরও পড়ুন - চোখের মেকআপ আইডিয়া

প্রথমে আমি চোখের পাতা আইল্যাশ কার্লার দিয়ে সুন্দর করে উপরদিকে টেনে নেই এতে চোখের পাতাগুলো যদি অবিন্যস্ত থাকে, সেটা সুন্দর সাজানো হয়ে যায়

তারপরে আই মাসকারা দিয়ে চোখের পাতায় উপরে  নীচে ভাল করে মাসকারা লাগিয়ে নেপ্রথম কোটের মাসকারা শুকিয়ে গেলে আর-এক কোট মাসকারা লাগাতে পারেন (যদি দরকার পড়ে)

আরেকটা কথা বাজারে এখন সাদা রঙের মাসকারা পাওয়া যায়। আপনি চাইলে কালো রঙের মাসকারা লাগানোর আগে সাদা মাসকারা একবার চোখের উপরের পাতায় লাগিয়ে নিতে পারেন। এতে পাতা অনেক বড় আর ঘনও লাগবে

আবার আইল্যাশ ঘন দেখানোর জন্য মাসকারা লাগানোর আগে কাজল পেনসিল দিয়েও আইল্যাশে ঘনত্ব অ্যাড করা যেতে পারে। এক্ষেত্রে  আমি কাজল পেনসিলটা আইল্যাশ বরাবর উপর দিকে টেনে নেই। এতে পাতা অনেকটাই ঘন দেখায়

যারা  নকল আইল্যাশ লাগাতে যারা পছন্দ করেন তারা যা করতে পারেন। এক্ষেত্রে আইল্যাশটা প্রথমে চোখের আপারলিডে লাগিয়ে নিয়ে, তারপর আই মেকআপ করতে হবে। নকল আইল্যাশে অল্প আঠা লাগানো থাকে। তাই আইল্যাশ খোলার সময় বা মেকআপ তোলার সময় সাবধান থাকতে হবে

এবার আমি প্রাকৃতিক উপায়ের কথা বলবো। আমি আইল্যাশ ঘন করার জন্য কিছু প্রাকৃতিক উপায় বা ঘরোয়া উপায় ব্যবহার করি। একটা কথা লক্ষ্য করে দেখবেন যে আমরা আমাদের ত্বকের বা চুলের যত্ন নিয়ে যতটা সচেতন থাকি ততোটা কিন্তু চোখের পাতা নিয়ে থাকি না। চোখের পাতা সুন্দর ঘন করতে হলে যত্নের প্রয়োজন আছে

আমি যা করি, সপ্তাহে দু দিন অলিভ তেল ক্যাস্টর ওয়েল একসঙ্গে মিশিয়ে স্নানের এক ঘণ্টা আগে চোখের পাতায় আঙুলের দিয়ে হালকা মাসাজ করি। স্নানের সময় ভালো করে ধুয়ে নেই

আরেকটা টিপস সেয়ার করবো, একচামচ বাদাম তেলের সঙ্গে এক চামচ মধু মিশিয়ে রোজ রাতে চোখের পাতায় লাগিয়ে রাখতে হবে। পরের দিন সকালে ধুয়ে নিন

ভুরু ঘন করার উপায়

ছোটবেলা আমার ভুরু খুবই হালকা ছিল।আমার মা পেনসিল দিয়ে এঁকে রাখতেন। আমিও যখন বুঝতে শিখলাম আমিও পেনসিল দিয়ে হালকা করে ভুরু আঁকতাম। স্কুল এর পর থেকে আমি আইব্রো প্লাক শুরু করি। মাসে একবার বা কি দু’বার আইব্রো প্লাক তো করতামই। কলেজ শেষে আমার আইব্রো অনেক ঘন হয়ে যায় আইব্রো প্লাক করাতে কি হয়, ভুরুর লাইন স্পষ্ট  পরিষ্কার হয় এবং একটা শেপ আসে। দীর্ঘদিন আইব্রো প্লাক করলে নতুন ভুরুও গজায়। ফলে ভুরুর ঘনত্ব বাড়বে। যা আমিও বুঝতে পারি। এখন সব সময় আর ভুরু আঁকার প্রয়োজন পরে না। তবে বিশেষ কোন অনুষ্ঠান বা খুব বেশি মেকআপ করলে আমি ভুরুর উপরের আলাদা নজর দেই। আজকাল বাজারে বিভিন্ন ধরনের আইব্রো ফিলার পাওয়া যায়।  এই ফিলারে নিজের হেয়ার কালারের শেড বাছাই করাই ভালো আমি লাগানোর জন্য হালকা তুলি ব্যবহার করি। এখন যদি আপনার কাছে ফিলার না থাকে তাহলে কি করবেন ? খুব সহজ ডার্ক শেডের আইশ্যাডো নিজের হেয়ারকালার অনুযায়ী বেছে আইব্রোতে লাগাতে পারেন। এতে ভুরু মোটা দেখাবে। আবার আর্টিফিশিয়াল মনে হবে না

আরেকটা কথা যোগ করতে চাই, মেকআপ করার সময়, পুরো মুখে মেকআপ হয়ে গেলে আমি কিন্তু ভুরুতে ময়শ্চারাইজ়ার বা ক্রিম  লাগাই

এতো গেলো মেকআপ পর্ব। প্রাকৃতিক উপায়ে কিভাবে ভুরু মোটা করবেন ? আমি যা করি, যে টিপসটি আইল্যাশ ঘন হওয়ার জন্য বলেছিলাম অলিভ তেল ক্যাস্টর ওয়েল এর মিশ্রন। আমি এই মিশ্রন রোজ রাতে ঘুমতে যাওয়ার আগে ভুরুতে লাগিয়ে নেই। সকালে উঠে ধুয়ে ফেলি অলিভ ক্যাস্টর তেল নতুন চুল গজাতে খুবই কার্যকরী

এছাড়া মাঝে মধ্যে আমি ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেটও খাই


মেকআপ তোলার নিয়ম

আইল্যাশের বা আইব্রো মেকআপ অনেক যত্নের সঙ্গে তুলতে হবে। মেকআপ তোলা নিয়ে খুব বেশি জোরাজুরি করলে  আইল্যাশের বা আইব্রো ঝরে যেতে পারে। আইল্যাশের মেকআপ করা যতটা সময়সাপেক্ষ, আইল্যাশের মেকআপ তোলাও ততটাই সময় নিয়ে করতে হবে। প্রথমে কোনও ময়শ্চারাইজ়ার বা ক্রিম দিয়ে চোখের উপরের মেকআপটা একটু নরম করে নিতে হবে। এর পরে আমি মেকআপ রিমুভার তুলোতে নিয়ে আইল্যাশের  আইব্রো মেকআপটা তুলে নেই। তারপর ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে নেই এরপরে অলিভ তেল নিয়ে আইল্যাশের  আইব্রোতে হালকা মাসাজ করি।  বেশি জোরে ঘষব না বা মেকআপ রিমুভিং টিস্যু দিয়ে কখনও আইল্যাশের মেকআপ তুলতে নেই। টিস্যুর ঘষা খেয়ে চোখের পাতা পড়ে যেতে পারে

এই কয়েকটা সাধারণ টিপস আমি ফলো করি। আপনি কি ফলো করেন অবশ্যই সেয়ার করুন। আর কেমন লাগলো  টিপস জানাবেন

You Might Also Like

0 comments

Contact Form

Name

Email *

Message *

Translate

Followers

Labels