ঘরোয়া উপায়ে স্কিন পলিশ বা ফেয়ার পলিশ (Fair Polish at Home)

15.3.15

কিছু দিন আগে একটা পোস্ট দিয়ে ছিলাম যে, কি নিয়ে টিপস দেবো। আমি অনেক সাজেশন পাই, প্রথমেই তার জন্য সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। যেটা দেখলাম, মানে কমন সমস্যা রং নিয়ে। শরীরের বিভিন্ন যায়গার রং বিভিন্ন রকম। মুখ ফর্সা তো গায়ের রং কালো বা পা কালো তো হাত রোদে পুড়ে ছাই। এতে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে ত্বকের স্বাভাবিক রঙ। তাহলে ত্বকের স্বাভাবিক রঙ ধরে রাখার উপায় কি ? একমাত্র উপায় স্কিন পলিশ বা ফেয়ার পলিশ। এখন বিউটি পার্লারে গিয়ে করতে গেলে মোটামুটি ভালোই খরচ করতে হবে। তাছাড়া আমি এমনও পার্লার দেখেছি যেখানে ফেয়ার পলিশ করতে ২ থেকে ৩ দিন যেতে হয়। এ ক্ষেত্রে তো সময়েরও অপচয়। অন্যদিকে মেলানিন সার্জারি করে রঙ ফর্সা করাটাও কিন্তু নিরাপদ নয়। এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া তো আছেই ? একটা কাগজে পড়েছিলাম বলিউড নায়িকা কাজল নাকি মেলানিন সার্জারি করে রঙ ফর্সা করিয়েছেন। মেলানিন সার্জারি বিষয়ে যখন পড়লাম আমার চোখ একেবারে চড়ক গাছে। সাধারন মানুষের পক্ষে এটা করা একেবারেই সম্ভব না। আর অনেক মেন্টেন করতে হয়।


যাই হোক গায়ের রঙটা একটু ফর্সা করতে আমাদের সকলেরই যেন চেষ্টার কমতি নেই। আজ রইলো ত্বকের রঙ ফর্সা একটা খুব সহজ উপায় যা আপনি করতে পারবেন বাড়িতে বসেই। যেতে হবে না পার্লারে, করতে হবে না ব্যয়বহুল কোন কসমেটিক সার্জারি আর ব্যবহার করতে হবে না কোন রাসায়নিক উপাদান।

স্কিন পলিশের ঘরোয়া অনেক উপায় আছে। আজকে আমি শুধু একটি টিপসই সেয়ার করছি ধীরে ধীরে আরও করবো। তাছাড়া এই নিয়ে আমি একটি ব্লগও লিখেছিলাম। নীচে এর লিঙ্ক দিয়ে দিলাম।


বেকিং সোডা স্কিন পলিশ
কি কি লাগবে –
১। বেকিং সোডা
২। যে ফেশওয়াস টি আপনি রোজ ব্যবহার করছেন
৩। বডি ওয়াস
৪। পিউমিক স্টোন

পদ্ধতি –
ফেশ পলিশ
এক্ষেত্রে বেকিং সোডা ও ফেশওয়াস এক সঙ্গে মিশিয়ে একটি ঘন পেস্ট তৈরি করুন এবং মুখে লাগিয়ে সার্কুলার মোশনে মাসাজ করুন। তারপর ১৫ মিনিট রেখে হালকা গরম জলে মুখ ধুয়ে নিন।
বডি পলিশ
একই রকম ভাবে বেকিং সোডা ও বডি ওয়াসের একটা ঘন মিশ্রন তৈরি করুন। সারা শরীরে লাগিয়ে নিন এবং পিউমিক স্টোন দিয়ে হালকা মাসাজ করুন। হাতে পায়ে ও ঘাড়ে একটু বেশি করে লাগাবেন। ঐ স্থানগুলি রোদে খুব তাড়াতাড়ি পুড়ে যায়।
আমি এর সঙ্গে সামান্য অলিভ তেল মিশিয়ে নেই। যা না মেশালেও চলবে।
এই পদ্ধতি একদিন অন্তর অন্তর করুন। তবে বেকিং সোডা ব্যবহারের আগে দেখে নিন আপনার ত্বকে সেটা সুট করছে কি না।
কেমন লাগলো টিপসটি জানাবেন,আর সেয়ার করতে ভুলবেন না। 

You Might Also Like

0 comments

Contact Form

Name

Email *

Message *

Translate

Followers

Labels