মুখের কালো দাগ দূর করার একটি সম্পূর্ণ রুটিন

23.4.15

ব্রণের দাগ বা রোদে পোড়া কালো দাগ সহজেই যেতে চায় না। অনেক ফেসওয়াস বা ফেস প্যাক লাগানোর সত্যেও এই কালো দাগ দূর হয় না। তাই তো। কিন্তু একটু ভেবে দেখুন, এই দাগ দূর করার জন্য কি আমরা সম্পূর্ণ কোন রুটিন ফলো করি ? আজ এটা তো কাল ওটা। রোজ কতো বিউটি ম্যাগাজিন পড়ি আর কোন টিপস ভালো লাগলে এক দিন কি দুই দিন লাগাই, আর ভাবি তিন দিনের দিন মুখে কোন দাগ থাকবে না। এটা কখনই সম্ভব না। কোন দাগ কিন্তু একদিনে আসে না। ব্রণের দাগ ছাড়া, রোদে পোড়া কালো দাগ বাতিলের মতো কিছু কালো দাগ ধীরে ধীরে আসে। এর জন্য শুরু থেকে যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। আমাদের অবহেলার কারনেই এই দাগগুলি আরও গভীর হয়ে ওঠে।




যাই হোক আজকের পোস্টে আমি খুব সহজ একটি রুটিন আপনাদের সঙ্গে সেয়ার করবো যা আমি গত ২ মাস ধরে ফলো করে আসছি। আমার মুখের ত্বকে ব্রণের দাগ রয়েছে, রোদে পোড়া দাগ নেই কিন্তু ছোট ছোট তিলের মতো দাগও রয়েছে। এই রুটিন টি ফলো করার পর ব্রণের দাগ এখন নেই, আর ছোট ছোট তিলের মতো দাগগুলি সম্পূর্ন না গেলেও অনেক টা হালকা হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। আমি এই রুটিন ফলো করার প্রথম দিন থেকে কিছু কিছু ছবি তুলেও রেখেছি, এটা বোঝার জন্য যে কতটা পরিবর্তন হয়েছে। আমি পরে আরও ছবি সেয়ার করবো, আজ তিনটি করলাম। day 67 এই ছবিটি আজ সকালের তোলা। এই কাজটি আপনারাও করে রাখতে পারেন,শুধু পরিবর্তনটা বুঝার জন্য।

>> ত্বকের দাগ তুলতে গ্রিন টি খুব ভালো কাজ করে। তাই ফেসওয়াস এর সাথে গ্রিন টি-এর লিকার মিশিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। আমি গ্রিন টি-এর একটি মাস্ক ব্যবহার করি, যা আমার ব্রণের দাগ দূর করতে সাহায্য করেছে। আমি প্যাকটি এর আগেও আপনাদের সঙ্গে সেয়ার করেছিলাম। গ্রিন টি আর মধুর প্যাক



>> এছাড়াও বিকেলের দিকে আমি প্রতিদিন টমাটো ও চিনি দিয়ে ত্বক স্ক্রাবিং করি ২ থেকে ৩ মিনিটের জন্য। এর পরে মিশ্রণটি রেখে দেই ২০ মিনিটের মতো। বিকেলের দিকে এটা করার কারন হচ্ছে সারা দিনের গরম তাপ থেকে ত্বকের যে ক্ষতি হল তা এই মিশ্রণটি রিকভারি করতে সাহায্য করে। যারা চাকরী করেন, তারা অফিস থেকে এসে এই প্রসেসটা ফলো করতে পারেন। মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে নিয়ে বাকি কাজ করুন।

>> রাতে কি করবেন। আমি এখন লোটাসের একটি নাইট ক্রিম ব্যবহার করছি। আমি নিজে বুঝতে না পারলেও বন্ধু মহলে ত্বকের উজ্জ্বলতা নিয়ে তারিফ পেয়েছি। তবে এই তারিফ যে শুধু নাইট ক্রিমের জন্য নয়, তা আমি জানি। আমার প্রাকৃতিক উপায়ে ত্বকের যত্নের জন্যও বটে। নাইট ক্রিমটি সত্যি খুব ভালো (আমি আমার monthly haul এর ছবি আপনাদের সঙ্গে সেয়ার করে ছিলাম) খুব শীঘ্রই এর রিভিউ লেখব। যাই হোক নাইট ক্রিম আমি একদিন অন্তর অন্তর ব্যবহার করি। অন্য সময় মুখ ফেসওয়াস দিয়ে ধুয়ে শুধু কালো দাগের উপরে লেবুর রস লাগিয়ে শুয়ে পরি।

এই হচ্ছে আমার মুখের কালো দাগ দূর করার একটি সম্পূর্ণ রুটিন। খুব সহজ কিন্তু প্রতিদিন এটা ফলো করতে হবে। আরেকটা কথা আমি যে ফেসওয়াস রিসেন্টে ব্যবহার করছি সেটা আমার ঘরে তৈরি। কিভাবে ফেসওয়াসটি তৈরি করেছি তার লিঙ্কটি নীচে দিয়ে দিলাম।

Read more : Homemade Face Wash

আমার ত্বকের দাগ কি কিছুটা দূর হল ? আপনাদের উওরের আশায় রাইলাম।
লেখাটি ভালো লাগলে লাইক করুন, শেয়ার করুন

You Might Also Like

0 comments

Contact Form

Name

Email *

Message *

Translate

Followers

Labels