বিদায় ব্ল্যাকহেডস !

25.5.15


ব্ল্যাকহেড বা হোয়াইটহেড এই সমস্যায় প্রায় আমরা অনেকেরই। মুখের সৌন্দর্য এই কালো মাথার জন্য নষ্ট হয়ে যায়। ত্বক যতই পরিষ্কার থাকুক না কেন, নাকের ডগাখানিতে ব্ল্যাকহেড সব কিছু মাটি করে দেয়। যাদের ত্বক তৈলাত্বক একমাত্র তাদেরই ব্ল্যাকহেড হবে এমন কোন কারন নেই। তবে হ্যাঁ তৈলাত্বক ত্বকে ব্ল্যাকহেডের সম্ভাবনা বেশি। অনেক সময় অলসতার কারণে নাকের যত্ন নেয়া হয় না, ফলে নাকের এই অংশটি অপরিষ্কার থাকলে, ধীরে ধীরে তাতে ব্ল্যাকহেড জমা হয়। এছাড়াও আমাদের টি জোনে (কপাল ও নাকে) তেল্গ্রন্থি গুলো মুখের অন্যান্য অংশের তুলনায় বেশি সক্রিয় থাকে। তেল নিঃসরণ বেশি হওয়ায় ধুলোবালি জমে ব্ল্যাকহেডস হয়ে যায়।



গরম কালে এই সমস্যা বেশি দেখা দেয়। গরম কালে  আমাদের ত্বকের কোষগুলো স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি প্রসারিত হয়ে যায়। এর ভেতর ধুলোবালি ঢুকে প্রথমে সাদা শাল বা হোয়াইটহেডসে পরিণত হয়। এগুলো পরে ব্ল্যাকহেডসে রূপান্তরিত হয়। যদি শুরু থেকেই সাদা শালগুলোকে দূর করা যায়, তাহলে সহজেই এই কালো মাথাগুলিকে দূর করা যাবে।

আজকের পোস্টের ঘরে বসেই ব্ল্যাকহেডস দূর করতে কিছু টিপস সেয়ার করবো, তবে যেহেতু এগুলি ঘরোয়া টিপস তাই নিয়মিত টিপসগুলি ফলো করতে হবে। তবেই রেজাল্ট পাওয়া যাবে।
প্রথমেই বলব, নখ দিয়ে ব্ল্যাক হেড্স বা হোয়াইট হেড্স তোলা খুব খারাপ অভ্যেস। এর ফলে কালো দাগ হয়ে যায় এবং এই দাগ সহজে যেতেও চায় না।

তাই ত্বক যদি সেনসেটিভ বা তৈলাক্ত হয়, তাহলে প্রতিদিন তিনবার নিয়ম করে নিমযুক্ত ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ, নাক ও নাকের দুপাশে পরিষ্কার করতে হবে।

এরপরে পরিস্কার করা মুখে গরম জলের ভাব দিয়ে ১০ মিনিট স্টিম করুন। এতে ত্বকের ব্ল্যাকহেডগুলো নরম হয়ে যাবে। ফলে এগুলো নির্মূল করা বেশ সহজ হয়ে যাবে। গরম জলের ভাব সপ্তাহে দুবার করুন।

এবার ২ টেবিল চামচ বেকিং সোডা নিয়ে গোলাপ জলের সঙ্গে মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করে নাকে লাগিয়ে রাখুন। পেস্টটি ১০-১৫ মিনিট রাখার পরে  টাওয়াল দিয়ে হালকাভাবে ঘষে ঘষে ধুয়ে নিন। বেকিং সোডা ত্বকে থাকা বিভিন্ন ময়লা এবং ব্যাকটেরিয়া দূর করে ফেলে। তবে মুখটি ধোয়ার জন্য হালকা কুসুম গরম জল ব্যবহার করলে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। বেকিং সোডা না থাকলে লেবু ও মধুও এক সঙ্গে ব্যবহার করতে পারেন।
এর পর টোনার বা অ্যাসট্রিনজেন্ট লাগিয়ে নেবে। এছাড়া কোনও ওষুধের দোকান থেকে ১২% গ্লাইকোলিক অ্যাসিড কিনে, রাতে শোওয়ার আগে মুখ পরিষ্কার করে নাকের উপর ও নাকের দুপাশে লাগিয়ে রাখলে ভাল ফল পাবেন

ব্ল্যাকহেডস দূর করার জন্য নাকের উপরে ব্যবহার করা যাবে এমন কয়েকটি প্যাক হল -

ডিমের সাদা অংশের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়েও নাকে লাগানো যেতে পারে। লাগানোর পর, এর ওপর একটা পাতলা নরম সূতির কাপড় আটকে দিতে হবে। শুকিয়ে গেলে টান দিয়ে তুলে ফেলতে হবে। এতে ব্ল্যাকহেডস উঠে যাবে।

Blackhead remover strips buy from Here

আরেকটি হল লেবু আর চিনি এক সঙ্গে মিশিয়ে নাকের উপরে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে কিছু সময় মাসাজ করতে হবে। এর পরে এই মিশ্রণটি লাগিয়ে রাখতে হবে ১০ মিনিটের মতো।

যাদের ত্বক শুষ্ক কিন্তু টি জোন থেকে তৈল বের হয় এবং এর থেকে ব্ল্যাকহেডস। তাদের জন্য আদর্শ মধু। দারুচিনি গুঁড়ো আর মধু ২:১ পরিমাণে মিশিয়ে ব্ল্যাক হেডস এর উপর ১৫-২০ মিনিট রাখুন। এর পর ২ মিনিট মাসাজ করে ধুয়ে ফেলুন। একই সাথে এই মিশ্রণটি ময়েশ্চারাইজার আর স্ক্রাব হিসেবে কাজ করে। সপ্তাহে তিন থেকে চার বার এই মিশ্রণটি ব্যবহার করলে ভালো ফল পাওয়া যাবে। 

যাদের নাকে সাদা শালের উপদ্রব রয়েছে,  তারা যেকোনো লোশন বা ম্যাসাজ ক্রিম ও পেট্রোলিয়াম জেলি এক সঙ্গে মিশিয়ে হালকা করে নাকে কিছু সময় মাসাজ করুন। নাকের ত্বক নরম হলে গরম জলে রুমাল ভিজিয়ে হালকা চাপ দিয়ে সাদা শালগুলো তুলে নিতে পারেন।
লেখাটি ভালো লাগলে লাইক করুন, শেয়ার করুন।

You Might Also Like

0 comments

Contact Form

Name

Email *

Message *

Translate

Followers

Labels