ত্বকে টোনার ব্যবহার করার ৬ টি কারণ

11.6.15


সারা বছরই আমরা আমাদের ত্বক নিয়ে সচেতন থাকি। গরম কালে, ত্বকের যত্ন যেন একটু বেশি বেড়ে যায়। যাবেই বা না কেন ? চারিদিকে এতো দূষণ, ধুলোবালি, সব কিছুর সারাসরি প্রভাব পরে ত্বকের উপরে। গরমে মুখের লোমকূপ গুলো একটু আকারে বড় হয়ে উঠে ফলে অত্যাধিক তৈলাক্ত উপাদান বের হতে থাকে আর সহজেই এই লোমকূপ গুলোতে ময়লা জমা হতে শুরু করে। তাই গরম কালে ত্বক পরিষ্কার রাখাটা মাস্ট। ত্বক পরিষ্কার করার কাজে টোনারের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। টোনার কেন ব্যবহার করবেন ? এর ৬ কারন আজকের পোস্টে তুলে ধরলাম।

১। ত্বকের পোরস বন্ধ করে

অনেকের ত্বকে ওপেন পোরসের সমস্যা রয়েছে। ওপেন পোরস ছোট করার উপায় হল টোনার ব্যবহার করা। একটি তুলোর বলে সামান্য টোনার নিয়ে খুব ভালো করে সারা মুখে লাগান। এতে করে মুখের বারতি তেল তো দূর হবেই সঙ্গে সঙ্গে পোরের মুখও ধীরে ধীরে ছোট হয়ে আসবে। যাদের ওপেন পোরসের সমস্যা অনেক বেশি তারা গরম কালে এই পদ্ধতি দু’বার ফলো করুন।

২। স্কিন পিএইচ ব্যালেন্স

আমাদের ত্বক স্বাভাবিকভাবেই আম্লিক (acidic)। সাধারণত ত্বকের পিএইচ ব্যালেন্স পাঁচ থেকে ছয়ের মধ্যে থাকে। আমরা ত্বক পরিষ্কার করার জন্য যে সমস্ত প্রডাক্ট ব্যবহার করি। বিশেষ করে সাবান জাতীয় জিনিস যার মধ্যে উপস্থিত ক্ষারীয় পদার্থ ত্বকের pH এর ভারসাম্যকে নষ্ট করে দেয়। ত্বকের হারিয়ে যাওয়া সেই ভারসাম্যকে পুনঃ ফিরিয়ে আনে টোনার। টোনার খুব দ্রুত স্কিন পিএইচ ব্যালেন্স ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করে।
৩।  ত্বকে সুরক্ষার স্তর তৈরি করে -

টোনার ত্বকের ছিদ্র  বন্ধ করতে সাহায্য করে এবং এর ফলে চামড়ার মধ্যে দূষণকারী পদার্থের অনুপ্রবেশ হ্রাস করে।  এমনকি আমরা যে কলের জল ব্যবহার করি, তাতে যে  উপস্থিত chlorines এবং খনিজ উপাদান রয়েছে, তার হাত থেকেও ত্বককে রক্ষা করে টোনার।

৪। ময়শ্চারাইজার করে -

টোনার ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখে।

৫। ত্বক রিফ্রেশ রাখে -

টোনার ত্বকের তৈলাক্ত ভাব বা ময়লা দূর করে, ফলে ত্বক হয়ে উঠে ফ্রেশ, মসৃণ, পরিষ্কার এবং হেলদি গ্লোয়িং। 

৬। অবাঞ্ছিত লোম দূর করে

টোনারে মধ্যে উপস্থিত গ্লাইকলিক বা অন্যান্য আলফা হাইড্রক্সি অ্যাসিড, যা ত্বকে অবাঞ্ছিত লোম উঠতে বাঁধা দেয়। নিয়মিত টোনারের ব্যবহার ত্বককে লোম মুক্ত রাখে।
টোনার ব্যবহার করার সময় অবশ্যই ত্বকের ধরন দেখে ব্যবহার করতে হবে। আগামি কোন এক পোস্টে কি দেখে টোনার কিনবেন বা বাজারের ভালো টোনারগুলি কি কি, এই নিয়ে একটা কি দু’টো লেখা লিখবো। কেমন লাগলো আজকের পোস্টটি জানাতে ভুলবেন না।

লেখাটি ভালো লাগলে লাইক ও শেয়ার করুন।

You Might Also Like

0 comments

Contact Form

Name

Email *

Message *

Translate

Followers

Labels